রাজশাহীতে হোটেলে নিয়ে কিশোরীকে রাতভর ধর্ষণ

রাজশাহী নগরীর সোনাদিঘীতে একটি হোটেলে এক কিশোরীকে রাতভর ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ কাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সোনাদিঘীর মোড়ে অবস্থিত ভাই ভাই হোটেলে রাতভর এ সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

rapist-raju-ahmed
ধর্ষকঃ মোহাম্মদ রাজু আহমেদ

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে একটি অটোরিকশায় করে ওই কিশোরীকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অটোরিকশার চালককে আটক করেছে। রনি নামের ওই অটোরিকশার চালক রাজশাহীর গোদাগাড়ীর রাজাবাড়ি এলাকার মৃত দলিল মণ্ডলের ছেলে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীর আনুমানিক বয়স ১৪ বছর। তার বাড়ি একই জেলার নাচোলের আমনুরা এলাকায়।

জানা গেছে, রাজশাহী কলেজে পলিটিকাল সায়েন্স ডিপার্টমেন্টের ছাত্র রাজু আহমেদের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ চলে আসছিলো ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক। এর সূত্র ধরে গতকাল বুধবার বিকেলে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রেমিক রাজু তাকে রাজশাহীতে ডেকে নিয়ে আসে। মেডিক্যাল পুলিশকে ওই কিশোরী জানায়, রাজশাহীতে আনার পরে রাজু তাকে ভাত খাওয়ানোর কথা বলে ভাই ভাই হোটেলে নিয়ে যায়। মেয়েটি তখনো জানতো না তাকে আবাসিক হোটেলে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে নেয়া হচ্ছে। এরপর তাকে সেখানে একটি কেবিনে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করা হয়। এর সঙ্গে হোটেলের কর্মচারীরাও জড়িত রয়েছে বলে জানায় সে।

মেডিক্যাল পুলিশের একটি সূত্র দাবি করেছে, হোটেলের কর্মচারীদের সহযোগিতায় মেয়েটিকে রাতভর সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়। এতে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে সকালে রাজু তার বন্ধু রনিকে ডেকে নিয়ে অটোরিকশায় করে তাকে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

Related Post